নোয়াখালীর মানুষ খেয়েই উঠে চলে আসে, কিন্তু কেন?

0 164

সারা বাংলাদেশের মানুষের কাছেই প্রচলন আছে যে নোয়াখালী অঞ্চলের মানুষরা নাকি খেয়েই উঠে যায়, অর্থাৎ খাওয়া শেষ হলেই আর দেরি না করে উঠে চলে আসে। খাওয়া শেষ করে এই উঠে চলে আসাটাকে অনেকে নেতিবাচক ভাবে দেখে, কেউ কেউ এটাকে আদবের বরখেলাফ মনে করে থাকেন। সবাই বলে নোয়াখাইল্যারা আদব কায়দা জানে না তাই খাওয়া শেষ হতে না হতেই বলে ‘অ্যাঁই যাইয়ের’।

অবশেষে দীর্ঘদিন পর এই কৌতুহলের রহস্য জানা গেল, কেন নোয়াখাইল্যারা খেয়েই উঠে চলে আসে। নোয়াখালীর কয়েকজন বাসিন্দাদের সাথে কথা বলে এর প্রধান দুইটি যোক্তিক কারণ জানা গেছে।

তারা বলেন-

এক. নোয়াখালীর মানুষ খুব পরিশ্রমী এবং সময়ের প্রতি শ্রদ্ধাশীল যার কারণে তারা খাওয়া শেষ করে বসে থেকে সময়ের অপব্যবহার করে না। সময়ের সঠিক ব্যবহার করতে জানে বলেই নোয়াখালী অঞ্চলের মানুষের সারা বিশ্বে সফল তারা।

দু্ই. আমরা সাধারণত কারো বাসায় দাওয়াত খেতে গেলে আত্বীয়রা সারাদিন কত কষ্ট করে অনেক কিছু রান্না করে। সারা দিন খাটা-খাটুনি করার পর মানুষের বিশ্রামের প্রয়োজন হয়। এখন কেউ যদি খাওয়া শেষ হওয়ার পরেও বসে থাকে তাহলে মানুষ মনে মনে বিরক্ত হয় এবং কষ্ট পায় যার কারণে নোয়াখাইল্যারা খেয়ে আর দেরী করে না এবং মানুষ কে বিশ্রামের সুযোগ করে দেয়।

আরও পড়ুন

তিনি গত বছরের ১৬ মে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেনের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ভারতীয় কোম্পানি সিরামকে বাড়তি সুবিধা দিতে গিয়ে ভ্যাকসিন নিয়ে আজকে জটিলতা তৈরি হয়েছে।

ব্যর্থতার দায়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এখনই পদত্যাগ করা উচিৎ : ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন…

বিএনপির উপজেলা কার্যালয়ে হামলা করে জিয়াউর রহমান ও বেগম খালেদা জিয়ার ছবি ভাঙচুর কারীদের এই আহবায়ক কমিটির শীর্ষ পদে আসীন করার অভিযোগ।

নোয়াখালীতে যুবদলের আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে ক্ষোভ-অসন্তোষ

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।