সৌদিতে নিহত লক্ষ্মীপুরের দুই ভাইয়ের বাড়িতে শোকের মাতম

73

সৌদি আরবে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের দুই ভাইয়ের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। দুর্ঘটনায় একই সাথে দুই সন্তানকে হারিয়ে পরিবারের লোকজন পাগল প্রায়। সান্তনা দিতে গিয়ে এলাকাবাসীও শোকে স্তব্ধ।
স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) রাতে সৌদি আরবের আল হোলাইফা শহরে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৭ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়। যার মধ্যে রয়েছেন লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের চরলরেন্স এলাকার নেছার আহমদের ছেলে জসিম উদ্দিন ও তার ছোট ভাই মো. ইব্রাহিম।
অপর পাঁচ নিহতের মধ্যে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের সহোদরসহ চারজন ও ফেনীর একজন।
বৃহস্পতিবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে নিহতের স্বজনরা জানান, চার বছর আগে জসিম উদ্দিন সৌদি আরবে যান। এর দুই বছর পর ছোট ভাই ইব্রাহিম হোসেনও সেখানে যায়। এর আগে তাদের বাবা নেছার আহমদ একই স্থানে কাজ করতেন। দুই ভাই ও বাবাসহ তিনজনে সৌদি আরবের আল হোলাইফা শহরে লেপ তোষকের ব্যবসা করতেন। তাঁরা সবাই একই বাসায় থাকতেন। দুর্ঘটনার সময় তাদের বাবা নেছার আহমদ বাসার বাইরে ছিলেন। যার ফলে তিনি বেঁচে যান।
গত তিন মাস আগে জসিম উদ্দিন ছুটি নিয়ে দেশে আসেন। বিয়ে করে ফিরেন কর্মস্থলে। তাদের স্বপ্ন ছিলো পরিবারের স্বচ্ছলতা ফিরিয়ে আনা, দুই বোনের বিয়ে দেওয়া, নিজেরাও সংসার করবে, মা-বাবার মুখে হাসি ফোটাবে। কিন্তু সব শেষ হয়ে গেছে। এখন তাদের কি হবে, কে দেখবে, এভাবে বিলাপ করতে করতে কান্নায় ভেঙে পড়েন বৃদ্ধা মা রৌশন আক্তার।
একই অবস্থা পরিবারের অন্য স্বজনদেরও। মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনায় পাড়া-প্রতিবেশীদের মধ্যেও শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
তবে সবকিছুর পর দ্রুত নিহতদের মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তাঁদের পরিবার ও স্বজনরা।

আরও পড়ুন

এ সময় বক্তারা আদালতের রায় ও ডাক্তারের চিকিৎসা পত্র বাংলা ভাষায় লিপিবদ্ধ করার জন্য জোরালো দাবি জানান।

চাটখিল কামিল মাদ্রাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

অল্পদিনের মধ্যেই এখানকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড গতিশীল হবে জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো অন্যায়, অবিচার, অনিয়ম ও চাঁদাবাজ আমার কাছে প্রশ্রয় পাবে না।

নিজ এলাকায় জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন এইচ এম ইব্রাহিম এমপি

মফস্বলে সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম।

মফস্বল সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ – এইচ এম ইব্রাহিম

এইচ এম ইব্রাহিম বলেন,আমার নির্বাচনী এলাকার অসুবিধাগ্রস্থ মানুষদের মাঝে অতীতের ন্যায় এবারও আমি শীতবস্ত্র বিতরণ করেছি। আমার নেতাকর্মীদের মাধ্যমে আমি প্রায় পঞ্চাশ হাজার পরিবারের কাছে এই শীতবস্ত্র পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছি।

নোয়াখালী-১ আসনে এইচ এম ইব্রাহিম এমপির শীতবস্ত্র বিতরণ

গ্রেপ্তার হওয়া মোশারফ হোসেন টিটু (২২) কবিরহাট থানার সুন্দলপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের লাতু সওদাগর বাড়ির মৃত মিয়াধনের ছেলে। সে পেশায় একজন মোবাইল মেকানিক।

কবিরহাটে ভাবির ব্যক্তিগত ভিডিও নিয়ে দেবর গ্রেপ্তার

Comments are closed.