সেনবাগে গ্রাহকের কোটি টাকা নিয়ে উধাও দ্বীপশিখা উন্নয়ন সংস্থা

119

নোয়াখালীর সেনবাগে কয়েকশত নিরীহ মানুষকে ঋণ দেওয়ার কথা বলে কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে দ্বীপশিখা উন্নয়ন সংস্থার নামের একটি এনজিও। ঘটনাটি ঘটেছে ২৮ জানুয়ারি রবিবার দুপুরে সেনবাগ পৌরসভার কলেজ রোড সংলগ্ন উত্তর সাহাপুর গ্রামে।
প্রতারণার শিকার সেনবাগ পৌরসভার কাদরা ৫নং ওয়ার্ডের খোকনের স্ত্রী হাসিনা আক্তার জানায়, গত ১০ দিন আগে দ্বীপশিখা উন্নয়ন সংস্থা নামের ওই এনজিও কর্মকর্তা মামুন ঋণ দিবে বলে প্রথম সপ্তাহে একশত টাকা করে সদস্য সংগ্রহ করে। পরবর্তীতে ৫ হাজার টাকা ডিপোজিটের বিনিময়ে ৫০ হাজার টাকা ও ১০ হাজার টাকা ডিপোজিটের বিনিময়ে ১ লাখ টাকা দিবে বলে টাকা জমা নেন। এরপর রোববার দুপুরে গ্রাহকরা ঋণের টাকার জন্য এসে দেখেন অফিসের প্রধান ফটকের কলাপসিবল গেইটে তালা ঝুলছে। এই খবর দ্রুত চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে অন্যান্য ঋণ প্রত্যাশী গ্রাহকরা কার্যালয়টির সামনে ভীড় জমান। এরপর তারা সেনবাগ থানায় গিয়ে বিষয়টি ওসিকে অবহিত করেন। প্রতারণার শিকার আরেক গ্রাহক মিজানুর রহমানজানান, তার স্ত্রী জেসমিন আক্তার জবা মহিলা সমিতির সদস্য হয়ে ঋণের জন্য ৫ হাজার টাকা জমা দেন কিন্তু রোববার দুপুরে গিয়ে দেখেন অফিসটির গেইট বন্ধ করে কর্মকর্তারা ফাইলপত্র রেখে গ্রহকদের জমা করা টাকা দিয়ে পালিয়ে গেছে। এভাবে প্রতারিত আরো গ্রাহকগণ হলেন সেনবাগের ৪ নং কাদরা ইউপির চাঁদপুর গ্রামের শাপলা মহিলা সমিতির মনোয়ারা ও আফরোজা। সোমবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত ওই অফিসে গ্রাহকরা আসলেও এতে তালা বন্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা গেছে।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করলে সেনবাগ উপজেলা সমবায় অফিসার একেএম মহিন উদ্দিন জানান, এ ধরণের কোন এনজিও সেনবাগে নেই। তিনি এলাকাবাসীকে সর্তক করে জানান, কোন নতুন এনজিও এলাকায় এসে কার্যক্রম শুরু করলে তারা নিবন্ধিত কিনা সে বিষয়ে উপজেলা সমবায় অফিস, সমাজসেবা অফিস ও নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন। স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, সেনবাগের ৫নং অর্জুনতলা ইউনিয়নের জৈনিক খোকন তার ইটের দেওয়াল ও টিন ছাউনি দেওয়া বাড়িটি বিক্রির জন্য সাইনবোর্ড ঝুলান। এরপর সেনবাগ পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের আনোয়ার হোসেন ওই বাড়িটি ভাড়া নিয়ে এ এনজিওটির নিকট ভাড়া দেয়। গ্রাহকরা তাদের টাকাকড়ি হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। দ্বীপশিখা উন্নয়ন সংস্থার স্থায়ী ঠিকানা উল্লেখ করা হয়েছে সিটি কমপ্লেক্স সার্কুলার রোড, দিলকুশা মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০২। এর রেজিস্ট্রেশন নং-১২০।

আরও পড়ুন

এ সময় বক্তারা আদালতের রায় ও ডাক্তারের চিকিৎসা পত্র বাংলা ভাষায় লিপিবদ্ধ করার জন্য জোরালো দাবি জানান।

চাটখিল কামিল মাদ্রাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

অল্পদিনের মধ্যেই এখানকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড গতিশীল হবে জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো অন্যায়, অবিচার, অনিয়ম ও চাঁদাবাজ আমার কাছে প্রশ্রয় পাবে না।

নিজ এলাকায় জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন এইচ এম ইব্রাহিম এমপি

মফস্বলে সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম।

মফস্বল সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ – এইচ এম ইব্রাহিম

এইচ এম ইব্রাহিম বলেন,আমার নির্বাচনী এলাকার অসুবিধাগ্রস্থ মানুষদের মাঝে অতীতের ন্যায় এবারও আমি শীতবস্ত্র বিতরণ করেছি। আমার নেতাকর্মীদের মাধ্যমে আমি প্রায় পঞ্চাশ হাজার পরিবারের কাছে এই শীতবস্ত্র পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছি।

নোয়াখালী-১ আসনে এইচ এম ইব্রাহিম এমপির শীতবস্ত্র বিতরণ

গ্রেপ্তার হওয়া মোশারফ হোসেন টিটু (২২) কবিরহাট থানার সুন্দলপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের লাতু সওদাগর বাড়ির মৃত মিয়াধনের ছেলে। সে পেশায় একজন মোবাইল মেকানিক।

কবিরহাটে ভাবির ব্যক্তিগত ভিডিও নিয়ে দেবর গ্রেপ্তার

Comments are closed.