সেনবাগে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, ইউপি সদস্যসহ গ্রেফতার ৫

0 32

নোয়াখালীর সেনবাগে এক গৃহবধূকে (৩২) গণধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্যসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টার গ্রেফতারদের আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) রাতে নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে ১১ জনকে আসামি করে সেনবাগ থানায় মামলা করলে পাঁচজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন- উপজেলার বীজবাগ ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আবু বক্কর ছিদ্দিক, মাসুদ, ইয়াছিন, আব্দুল হক মাস্টার, ওবায়দুল হক।

সেনবাগ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল বাতেন মৃধা জানান, গত ৭-৮ দিন আগে ওই গৃহবধূ পারিবারিক কলহের জের ধরে কোম্পানীগঞ্জে তার বাবার বাড়ি চলে যান। পরে ৫ সেপ্টেম্বর তার স্বামীর বন্ধু দিদারকে বিষয়টি জানাতে ফেনীতে যান ওই গৃহবধূ। একপর্যায়ে দিদার রাতে তাকে সেনবাগে তার স্বামীর বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার কথা বলে ফেনী থেকে সেনবাগ নিয়ে আসেন। কিন্তু তাকে তার স্বামীর বাড়িতে পৌঁছে না দিয়ে দিদার একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যান। পরে সেখানে দিদারসহ আরও তিনজন তাকে ধর্ষণ করে।

ওসি আরও জানান, ভুক্তভোগী গৃহবধূ বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য ছিদ্দিককে জানালে ইউপি সদস্যসহ মাতব্বররা উল্টো তাকে খারাপ আখ্যা দিয়ে মারধর করে পুনরায় বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেন। একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাতে ওই গৃহবধূ বিষয়টি সেনবাগ থানায় অবহিত করলে পুলিশ রাতেই ইউপি সদস্যসহ ধর্ষণের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার করে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারেও পুলিশ জোর তৎপরতা চালাচ্ছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।