লক্ষ্মীপুরে গণধর্ষণ মামলায় আরো ২ আসামি গ্রেফতার

0 29

লক্ষ্মীপুরে বিধবাকে গণধর্ষণ মামলায় জড়িত আরো দুই আসামি আরিফ (৩০) ও আলাউদ্দিনকে (৪০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নোয়াখালী জেলার সুধারাম থানাধিন চর কর্মুল্লা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে রামগতি থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত আরিফ ও আলাউদ্দিন রামগতি উপজেলার চর পোড়াগাছা ইউপির চর কলাকোপা গ্রামের মো. মিলন ও সৈয়দ আহাম্মদের ছেলে। এ নিয়ে এ মামলার ৫ আসামির মধ্যে এ পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে সোমবার গ্রেফতারকৃত জামাল ও সোহেলকে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়। বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজী সোনিয়া আক্তার এর আদালত তাদের ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, স্বামীহারা বিধবা ওই নারী একমাত্র মেয়েকে নিয়ে কোডেক কলোনীতে বসবাস করে আসছিলেন। সম্প্রতি মেয়েকে বিয়ে দেয়ার পর নিজ বসতঘরে একাই থাকতেন তিনি। এ সুযোগে স্থানীয় জামালসহ কয়েকজন বখাটে যুবক তাকে প্রায়ই উত্যক্ত করে আসছিল। কিছুদিন পূর্বে এ নিয়ে ওই নারীকে মারধর করে আহত করার ঘটনায় আদালতে মামলা করেন তিনি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ঘটনার রাতে ঘরে ঢুকে জামালসহ ওই ৫ যুবক জোরপূর্বক তাকে গণধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে গণধর্ষণ শেষে তার মুখে কসটেপ ও হাত পা বেঁধে বশত ঘরের পেছনে ফেলে যায় অভিযুক্তরা। ভোর ৫টার দিকে কাতরানোর আওয়াজ শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীকে হাত-পা মুখ বাঁধা অবস্থায় দেখে পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় সোমবার (৫ অক্টোবর) ভিকটিম নিজে বাদী হয়ে প্রতিবেশি বখাটে জামালসহ ৫ জনকে আসামি করে রামগতি থানায় গণধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ওই দিনই পুলিশ মামলার প্রধান আসামি জামাল (২৮) ও তার সহযোগী সোহেলকে (২৬) গ্রেফতার করে মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করেন।

গ্রেফতার ও রিমান্ড মঞ্জুরের বিষয়টি রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান নিশ্চিত করেছেন। বাকি অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।