মাহির কোনো সিনেমা দেখেননি তার স্বামী!

20

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। ২০১২ সালে ‘ভালোবাসার রঙ’ সিনেমার মাধ্যমে তিনি রূপালি জগতে আসেন। এরপর অনেকগুলো সিনেমায় অভিনয় করে দেশের প্রথম সারির নায়িকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন।

মজার ব্যাপার হলো, মাহির কোনো সিনেমাই দেখেননি তার স্বামী রাকিব সরকার! এ কথা নায়িকা নিজেই জানিয়েছেন। ফেসবুক লাইভে এসে এক দর্শকের মন্তব্যের জবাবে বিষয়টি জানান তিনি।

 

 

মাহি ও তার স্বামী রাকিব সরকার ব্যস্ত সময় পার করছেন তাদের রেস্টুরেন্ট ‘ফারিশতা’ নিয়ে। গত রমজানের শুরুর দিকে এটি চালু হয়েছে। প্রায়ই তারা রেস্টুরেন্টে গিয়ে ছবি তুলছেন, ভিডিও করে মানুষকে আহ্বান করছেন।

ঈদের ছুটিতেও খোলা আছে মাহির রেস্টুরেন্ট। স্বামীকে নিয়ে মধ্যরাতে তিনি সেখানে যান। যাওয়া এবং রেস্টুরেন্টে অবস্থানকালীন সময়ে নায়িকা ছিলেন ফেসবুক লাইভে। রেস্টুরেন্টে ঢোকার পর মাহি তার স্বামীকে অনুরোধ করেন গান গাওয়ার। সেখানে মাইক্রোফনসহ গান-বাজনার ব্যবস্থাও আছে।

এমন মুহূর্তে এক দর্শক মন্তব্য করেন, মাহি অভিনীত ‘পোড়ামন’ সিনেমার ‘জ্বলে জ্বলে জোনাকি’ গানটি গাইতে। তখন মাহি বলেন, ‘ও জীবনেও আমার কোনো সিনেমা দেখেনি। এই গানও সে শোনেনি।’

এরপর রাকিবকে ডেকেও জিজ্ঞেস করেন, তিনি মাহির কোনো সিনেমার গান জানেন কিনা। জবাবে রাকিব বলেছেন, ওই দর্শক যেন গানটি গেয়ে পাঠায়। তাহলে তিনি অনুকরণ করে গাইতে পারবেন।

 

 

উল্লেখ্য, সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে ডিভোর্স দিয়ে গাজীপুরের ব্যবসায়ী ও রাজনৈতিক ব্যক্তি রাকিব সরকারকে বিয়ে করেছেন মাহিয়া মাহি। গত বছরের ১৩ সেপ্টেম্বর তাদের বিয়ে হয়। এরপর থেকে তারা সুখেই সংসার করছেন। একসঙ্গে মক্কায় গিয়ে ওমরাহ পালন করে এসেছেন। এখন সংসারের পাশাপাশি ব্যবসাতেও মনোযোগ দিচ্ছেন।

আরও পড়ুন

এ সময় বক্তারা আদালতের রায় ও ডাক্তারের চিকিৎসা পত্র বাংলা ভাষায় লিপিবদ্ধ করার জন্য জোরালো দাবি জানান।

চাটখিল কামিল মাদ্রাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

অল্পদিনের মধ্যেই এখানকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড গতিশীল হবে জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো অন্যায়, অবিচার, অনিয়ম ও চাঁদাবাজ আমার কাছে প্রশ্রয় পাবে না।

নিজ এলাকায় জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন এইচ এম ইব্রাহিম এমপি

মফস্বলে সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম।

মফস্বল সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ – এইচ এম ইব্রাহিম

এইচ এম ইব্রাহিম বলেন,আমার নির্বাচনী এলাকার অসুবিধাগ্রস্থ মানুষদের মাঝে অতীতের ন্যায় এবারও আমি শীতবস্ত্র বিতরণ করেছি। আমার নেতাকর্মীদের মাধ্যমে আমি প্রায় পঞ্চাশ হাজার পরিবারের কাছে এই শীতবস্ত্র পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছি।

নোয়াখালী-১ আসনে এইচ এম ইব্রাহিম এমপির শীতবস্ত্র বিতরণ

গ্রেপ্তার হওয়া মোশারফ হোসেন টিটু (২২) কবিরহাট থানার সুন্দলপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের লাতু সওদাগর বাড়ির মৃত মিয়াধনের ছেলে। সে পেশায় একজন মোবাইল মেকানিক।

কবিরহাটে ভাবির ব্যক্তিগত ভিডিও নিয়ে দেবর গ্রেপ্তার

Comments are closed.