মাউন্ট এলিজাবেথের ৩০০৮ নম্বর আইসিইউতে ওবায়দুল কাদের

128

ভারতের প্রখ্যাত কার্ডিয়াক সার্জন দেবী প্রসাদ শেঠির পরামর্শে গুরুতর অসুস্থ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের ৩০০৮ নম্বর ইন্টেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে।

সোমবার স্থানীয় সময় রাত ৮টার কিছু পর তাকে ডা. কোহ সিয়াম সুন ফিলিপের তত্ত্বাবধানে ভর্তি করা হয়।

এর আগে সোমবার বিকাল সোয়া ৪টায় সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের একটি এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদেরকে নিয়ে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে। বাংলাদেশ সময় রাত ৭টা ৫০ মিনিটে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সটি সিঙ্গাপুরে পৌঁছে বলে সেদেশে বাংলাদেশ দূতাবাস জানান।

জানা যায়, ঢাকার মতো এয়ার অ্যাম্বুলেন্সেও ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল ছিল। তার ব্লাড প্রেসার ছিল ১৩৫/৭৮।

ডা. কোহ সিয়াম সোন ফিলিপ একজন বিশ্বখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ। মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের চিকিৎসকদের প্রোফাইলে উল্লেখ করা হয়েছে, তিনি সিঙ্গাপুর ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে ১৯৮৯ সালে এমবিবিএস পাস করেন।

পরে একই প্রতিষ্ঠান থেকে ২০০০ সালে এম.মেড (ইন্টার্নাল মেডিসিন) ডিগ্রি অর্জন করেন। এছাড়াও কার্ডিওলজিতে এফএএমএস করেন এ চিকিৎসক। তিনি ইংরেজির পাশাপাশি মালয়, ইন্দোনেশিয়ান, মান্দারিয়ানসহ বিভিন্ন ভাষাতেও পারদর্শী।

ওবায়দুল কাদেরের সর্বশেষ অবস্থা :
রোববার সকালে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে হাসপাতালে ভর্তির পর দুপুরের দিকে চিকিৎসকরা বলেছিলেন, তার অবস্থা ‘সংকটজনক’। আর সন্ধ্যায় তারা বলেন, অবস্থার সামান্য উন্নতি হওয়ায় ওবায়দুল কাদের ডাকে সাড়া দিয়ে চোখ মেলতে পারছেন, তবে এখনো অবস্থা শঙ্কামুক্ত বলা যাবে না।

রোববার সন্ধ্যায় সিঙ্গাপুর থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সের সঙ্গে আসা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা কাদেরের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেন। তাদের সঙ্গে আলোচনা করে রাতে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের উপাচার্য বলেন, সার্বিক অবস্থা বিবেচনায় তখনই সিঙ্গাপুরে না নিয়ে দেশেই চিকিৎসা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। এদিকে সরকারের ডাকে দুপুরে ভারত থেকে উড়ে আসেন ভারতের নারায়ণ ইন্সটিটিউট অব কার্ডিয়াক সায়েন্সেসের প্রতিষ্ঠাতা ডা. দেবী শেঠি, যার ১৫ হাজারের বেশি অস্ত্রোপচার করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। তিনি ওবায়দুল কাদেরের সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে মতামত দিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলে ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুরে পাঠানোর অনুমতি দেন বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের চিকিৎসকরা।

সেই সিদ্ধান্ত জানাতে দুপুরে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের ডা. মিল্টন হলে ব্রিফিংয়ে এসে ওবায়দুল কাদেরের সর্বশেষ অবস্থা, তার শারীরিক জটিলতা এবং রোগের ইতিহাস নিয়ে বিস্তারিত কথা বলেন চিকিৎসকরা।

কাদেরের চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান কার্ডিওলজির অধ্যাপক সৈয়দ আলী আহসান, কার্ডিয়াক সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক অসিত বরণ অধিকারী এবং উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন এই ব্রিফিংয়ে।

ডা. আলী আহসান বলেন, সোমবার সকাল ৯টার পর থেকে ওবায়দুল কাদেরের অবস্থা অনেকটা স্থিতিশীল হয়ে আসে। রক্তচাপ, ইলেকট্রোলাইটস, রক্তের পিএইচ এবং রক্তে চিনির পরিমাণ স্বাভাবিক পর্যায়ে নিয়ে আসা সম্ভব হয়। প্রস্রাবের পরিমাণও মোটামুটি স্বাভাবিক হয়ে আসে।

তিনি বলেন ‘উনি বেশ নড়াচড়া করছিলেন, ভেন্টিলেটর খুলে দেওয়ার জন্য ইঙ্গিত দেখাচ্ছিলেন। এতে বোঝা যায় উনি বেশ ভালো আছেন। আমরা ঘুমের ওষুধ দিয়ে তার এই কষ্টটা লাঘব করেছি। সব কিছু মিলিয়ে বলা যায়, উনার পজিশন এখন স্টেবল আছে এবং উন্নতির দিকে যাচ্ছে।’

তবে কাদের শ্বাসতন্ত্রের জটিল রোগ সিওপিডিতে (ক্রনিক অবসট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ) ভুগছেন জানিয়ে এই চিকিৎসক বলেন, ‘উনার ভেন্টিলেটর ও মেশিন, যেটা সাপোর্ট দেওয়া আছে, এটা উইথড্র করতে একটু সময় লাগবে।’

অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের অনেক আগে থেকেই ডায়াবেটিস এবং রক্তচাপে ভুগছিলেন কিন্তু তা নিয়মিত নিয়ন্ত্রণ করা হতো না। উনার হার্টে আগেও একটা অ্যাটাক হয়েছিল। উনাকে স্টেন্টিং করার জন্য আগেও পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। গত ২০ ডিসেম্বর উনি আসার পর একটা মেডিকেল বোর্ড গঠন করে দিই, তখন ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু স্বাভাবিকভাবেই ইলেকশনের আগে উনি ভর্তি হননি।’

এখন কাদেরের অবস্থা শঙ্কামুক্ত কিনা- এই প্রশ্নে অধ্যাপক অসিত বরণ অধিকারী বলেন, ‘শঙ্কামুক্ত শব্দটা আপেক্ষিক-আজকে (সোমবার) উনার অবস্থা কালকের চেয়ে অনেক ভালো।’

কি বলেছেন দেবী শেঠি
অধ্যাপক কনক কান্তি বলেন, সোমবার সকালে ওবায়দুল কাদেরের অবস্থা স্থিতিশীল হয়ে আসার পর উনারা ঠিক করেন, এখন তাকে বিদেশে পাঠানো যায়। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে ডা. দেবী শেঠিকে এনে একবার দেখানোর অনুরোধ থাকায় তারা সময় নেন। ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে সোমবার দুপুরে ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে আসেন ভারতের কার্ডিয়াক সার্জন দেবী প্রসাদ শেঠি।

এর আগে একটি চার্টার করা প্লেনে বেলা পৌনে ১টায় ঢাকায় পৌঁছেন ডা. দেবী শেঠি। বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে গিয়ে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার সব কাগজপত্র ও ডাক্তারি পরীক্ষার ফলাফল তিনি পর্যালোচনা করেন।

শুরু থেকে কী কী উপসর্গ ছিল, কখন কীভাবে অবস্থার ওঠানামা হয়েছে, সে সময় কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, এনজিওগ্রামে কী পাওয়া গেছে, রাতে তার পরিস্থিতি কেমন ছিল, সবকিছু খুঁটিয়ে শোনেন প্রখ্যাত এই ভারতীয় চিকিৎসক।

আরও পড়ুন

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুপুর ১টার দিকে বাতাসে লাশের দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন দুর্গন্ধের উৎস খুঁজতে থাকে। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে লামচর গ্রামের সর্দার বাড়ি সংলগ্ন ডোবায় অর্ধগলিত একটি মরদেহ দেখতে পায় তারা।

চাটখিলে বৃদ্ধের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

বেলায়েত হোসেন আশা করেন দলীয় নেতৃবৃন্দ ও তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সহযোগিতায় সর্বসাধারনের ভালোবাসায় তিনি বিপুল ভোটে চাটখিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।

চাটখিলে সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বেলায়েত এর মতবিনিময়

নোয়াখালীর চাটখিলে কর্মরত সাংবাদিকদের সম্মানে চাটখিল উপজেলা প্রেসক্লাবের আয়োজনে চাটখিল কামিল মাদ্রাসা গভর্নিং বডির সভাপতি সাংবাদিক মেহেদী হাছান রুবেল ভুঁইয়া’র পৃষ্ঠপোষকতায় ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চাটখিলে কর্মরত সাংবাদিকদের সম্মানে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

তিনি দেশবাসীকে মাতৃভাষায় বুঝে বুঝে কুরআন পাঠের আহ্বান জানান।

সারাদেশে অর্থসহ কুরআন পাঠ দিবস পালিত

Comments are closed.