ফেনীতে সর্ববৃহৎ ঈদ জামাত হবে মিজান ময়দানে

0 8

ফেনী: ফেনীতে ঈদের প্রধান ও সর্ববৃহৎ জামাত সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে ফেনী আলীয়া মাদ্রাসা মসজিদ প্রাঙ্গণ মিজান ময়দানে।

সর্ববৃহৎ ঈদ জামাতের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে জেলার ঐতিহাসিক মিজান ময়দানকে।

এজন্য জোরেশোরে চলছে শেষ মুহূর্তের কাজ। এখানে নামাজের ইমামতি করবেন ফেনী আলিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মাহমুদুল হাসান।
পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন। তিনি জানান, জেলার সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত হবে এখানে। সে বিষয়টি মাথায় রেখে প্রস্তুতি নিয়েছে ফেনী পৌরসভা। বাঁশ, কাঠ দিয়ে মাঠে প্রস্তুত করা হয়েছে প্যান্ডেল। চলছে ফ্যান টাঙানোর কাজ। কেউ কেউ আবার টুকিটাকি রঙের কাজে ব্যস্ত। আবার কেউ গেট সাজাতে ব্যস্ত।

ফেনী মিজান রোড এলাকার বাসিন্দা লেখক, সম্পাদক আরিফুল আমিন রিজভী বলেন, মিজান ময়দানে প্রতিবছর সাধারণত ৭/৮ হাজার মানুষ ঈদের নামাজ পড়ে। গত দুই বছর করোনার কারণে খোলা ময়দানে ঈদের নামাজ হয়নি। এ বছর হবে খোলা ময়দানে। ধারণা করা হচ্ছে, এখানে এ বছর ঈদের জামাতে ১০ হাজার মানুষের সমাগম হবে।

ইসলামী ফাউন্ডেশন সূত্র জানায়, মিজান ময়দানে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। জামাতে অংশগ্রহণ করার কথা রয়েছে ফেনী জেলা প্রশাসক আবু সেলিম মাহমুদ-উল হাসান, পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুনসহ জেলার গণ্যমান্যরা।

এছাড়া ফেনী কেন্দ্রীয় বড় জামে মসজিদে সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে, লমি হাজারী বাড়ি মসজিদে সাড়ে ৮টায়, জহিরিয়া মসজিদ, পুরাতন রেজিস্ট্রি অফিস জামে মসজিদ ও শান্তি কোম্পানি জামে মসজিদে ৮টা, ফেনী কোর্ট জামে মসজিদে ৭টা, পুলিশ লাইন মসজিদ, সার্কিট হাউজ জামে মসজিদ ও মহিপাল চৌধুরী বাড়ী জামে মসজিদ, ফেনী রেলস্টেশন জামে মসজিদে সাড়ে ৮টা, উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদে ৯টা, জিএ একাডেমি হাই স্কুল মাঠে সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। জেলা কারাগারে সকাল ৮টা ও বন্দিদের নিয়ে ঈদের জামাত সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন মসজিদ ও ঈদগাহ কমিটি তাদের সুবিধাজনক সময়ে ঈদ জামাতের সময় নির্ধারণ করবেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।