ফেনীতে রক্তের চাহিদা মেটান স্বেচ্ছাসেবীরা

0 1

বিশ্ব রক্তদাতা দিবস আজ (১৪ জুন)। মুমূর্ষু রোগীকে স্বেচ্ছায় রক্তদান করে জীবন বাঁচাতে সাহায্য করার স্বীকৃতি, সম্মান ও রক্তদানে উদ্বুদ্ধ করতে বিশ্বজুড়ে প্রতিবছর এ দিবসটি পালন করা হয়।

সাম্প্রতিককালে ফেনীতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নানা সচেতনতামূলক কার্যক্রমে বেড়েছে স্বেচ্ছায় রক্তদাতার সংখ্যা।
জেলার বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকের রক্ত পরিসঞ্চালন বিভাগের তথ্যমতে, ফেনীতে চাহিদার প্রায় ৮০ শতাংশ রক্তের যোগান দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবীরা। বাকি ২০ শতাংশ রক্ত আসে আত্মীয় ও পেশাদার রক্তদাতাদের কাছ থেকে।

এ প্রসঙ্গে ফেনী জেনারেল হাসপাতালের রক্ত পরিসঞ্চালন বিভাগের ইনচার্জ মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট সালেহ উদ্দিন পাটোয়ারী জানান, জেলার প্রায় অর্ধেকের বেশি রক্ত ফেনী জেনারেল হাসপাতালে পরিসঞ্চালন করা হয়। এ হাসপাতালে প্রতিমাসে গড়ে সাড়ে ৪ শতাধিক রক্ত পরিসঞ্চালন হয়ে থাকে। যার ৮০ শতাংশ আসে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাধ্যমে।

জয়নাল আবেদীন ব্লাড ব্যাংকের মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট তুষার দেবনাথ বলেন, প্রতিমাসে গড়ে ৭০ থেকে ৮০ ব্যাগ রক্ত গ্রহণ করা হয়। যার প্রায় অংশ প্রত্যক্ষ-পরোক্ষভাবে স্বেচ্ছাসেবকদের থেকে আসে।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আমরা ক’জন স্বেচ্ছাসেবক ফেনীর সভাপতি সাহাব উদ্দিন বলেন, প্রতিবছর নানা আয়োজনে বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে স্থানীয় সংগঠনগুলো যৌথ উদ্যোগে দিনব্যাপী বিভিন্ন জনকল্যাণমুখী কর্মসূচি পালনের মাধ্যমে দিবসটি উদযাপন করে। স্বেচ্ছাসেবী রক্তদাতা বৃদ্ধির কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ফেনীতে তুলনামূলক অনেক বেশি রক্তদাতা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন রয়েছে। তাদের নানা কার্যক্রমের ফলে তৃণমূল পর্যায়েও এখন রক্তদাতা অনেক বেড়েছে।

সরকার নিবন্ধিত সংগঠন ফ্রেন্ডস ইউনিটি ব্লাড ডোনার ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সুমন বলেন, চলতি বছর সংগঠনের পক্ষ থেকে ২০০ ব্যাগের অধিক রক্তদান করা হয়েছে। এছাড়া নতুন রক্তদাতা সৃষ্টিতে পরশুরাম উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন করা হয়েছে।

রক্তদানের অনুভূতি জানিয়ে অরুপ বণিক নামে এক স্বেচ্ছায় রক্তদাতা বলেন, সংকটকালীন মুহূর্তে রক্তদানের মাধ্যমে মানুষের জীবন বাঁচানো মহৎ কাজ। একব্যাগ রক্তদান করে কাউকে সুস্থ জীবনযাপনে সহযোগিতা করতে পারার অনুভূতি অনেক ভালো লাগার।

জাহিন আল রাহীম নামে থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত এক শিশুর অভিভাবক বলেন, আমার ছেলের জন্য প্রতিমাসে রক্ত প্রয়োজন হয়। ৩ বছর আগেও ১ ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করতে অনেক হিমশিম খেতে হতো। তবে এখন বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থী এবং সংগঠনের মাধ্যমে খুব সহজেই রক্ত পাওয়া যায়।

রক্তদান কার্যক্রমে বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোকে যথাযথ প্রক্রিয়ায় অনুসরণ করতে আহ্বান জানান বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতারা।

রক্তদানে কাজ করছে যেসব সংগঠন
ফেনীতে স্বেচ্ছায় রক্তদানে এবং নতুন রক্তদাতাদের উদ্বুদ্ধ করতে কাজ করছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো। রক্তদানের পাশাপাশি প্রায় প্রতিটি সংগঠনই অন্যান্য জনকল্যাণকর কাজে জড়িত। জেলা স্বেচ্ছাসেবক পরিবারের তথ্যমতে, জেলায় রক্তদানে সহায়, রক্ত কণিকা বাংলাদেশ, ফেনী ব্লাড ডোনেট অ্যাসোসিয়েশন, ব্লাড ডোনেশন গ্রুপ ফেনী, উত্তরণ ব্লাড ডোনার’স ক্লাব, পরিবর্তন, আলোকিত ব্লাড ডোনেট ক্লাব, চ্যারিটি ফাউন্ডেশন, অগ্রণী ব্লাড ফাউন্ডেশনসহ বেশ কিছু ক্লাব রয়েছে।

দিনটি উদযাপনে ফেনীতে নানা আয়োজন
বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে ফেনী জেলা স্বেচ্ছাসেবক পরিবার। দিবসটি উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকেলে শহরের ডা. সাজ্জাদ হোসেন মিলনায়তনে কেক কাটা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। এতে জেলার বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সদস্য, স্বেচ্ছায় রক্তদাতা এবং বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।