ফেনীতে একাধিক মাদক চোরাকারবারী মাদকসহ গ্রেপ্তার

183

ফেনী ও ছাগলনাইয়ায় ইয়াবা, ফেন্সিডিল, গাঁজা, অবৈধ বিয়ার ও হেরোইনসহ পাঁচ মাদক চোরাকারবারীকে ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় আটক করেছে পুলিশ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, মঙ্গলবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি বিশেষ টিম মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে বের হয়। অভিযানকালে শহরের দক্ষিণ বিরিঞ্চি কদলগাজী রোড রেনু হাজারীর বাড়িতে আবুল খায়ের হেলুর (৫১) বসতঘরে অভিযান চালিয়ে তার ব্যাগে ৩শ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং একটি গোল্ডলিফ সিগারেটের খালি প্যাকেটে কাগজ মোড়ানো হেরোইনের ৫০ পুরিয়াসহ গ্রেফতার করে। হেলু ওই এলাকার মৃত তাজুল ইসলামের ছেলে।
এছাড়াও একই সময় ঐ এলাকায় ভিন্ন আরেকটি অভিযান চালায় মকু মিয়ার বাড়িতে। তখন মৃত মোখলেছুর রহমান ওরফে মকু মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ জাফর আহাম্মদ (৩৩) কে ১শ ১০পিস ইয়াবাসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।
এ ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধীদপ্তরের পরিদর্শক ইকবালুর রহমান বাদী হয়ে উভয়ের বিরুদ্ধে ফেনী মডেল থানায় পৃথক দুইটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন।
এদিকে ফেনীতে ১৮০ বোতল ফেনসিডিলসহ সফিকুল ইসলাম প্রকাশ সুমন (২২) নামে এক মাদক বিক্রেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সুমন ফেনী সদর উপজেলা ধলিয়া ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের বাসিন্দা।
ফেনী মডেল থানার ওসি মো. রাশেদ খান চৌধুরী জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার ভোরে শহরের ভাষা শহীদ সালাম ষ্টেডিয়ামের সামনে থেকে সফিকুল ইসলাম সুমন নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশ। পরে তাঁর দেখানো তথ্য অনুযায়ী ১৮০ বোতল ভারতীয় নিষিদ্ধ ফেন্সিডিল উদ্ধার করে।
তিনি জানান, তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের শেষে তাঁকে ফেনীর বিচারিক হাকিমের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।
অপরদিকে ছাগলনাইয়া থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে মাদক বিক্রেতা মো. কবির আহম্মদ (৫৫) ও মো. সাইফুল ইসলাম (২৬) কে আটক করেছে।
মঙ্গলবার উপজেলার পশ্চিম মধুগ্রাম গ্রাম থেকে ২ কেজি গাঁজা ও ২টি বিয়ারসহ কবির এবং একই উপজেলার দৌলতপুর গ্রাম থেকে ৪০ লিটার চোলাই মদসহ সাইফুলকে আটক করা হয়। কবির উপজেলার পশ্চিম মধুগ্রাম গ্রামের মৃত আবদুল হক’র পুত্র এবং সাইফুল জোরারগঞ্জ থানার ঘোড়ামারা গ্রামের আবু তাহের’র পুত্র।
ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ এম.এম. মুর্শেদ পিপিএম কবির এবং সাইফুলকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

আরও পড়ুন

বিশেষ মেহমান হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন বিএম এর নোয়াখালী জেলার সভাপতি ডাঃ এম এ নোমান,চাটখিল কামিল (এম.এ) মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও উপজেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মেহেদী হাছান রুবেল ভূঁইয়া।

চাটখিলে ডিয়ার ছোয়াদ এজেন্সির হজ্জ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

মাদ্রাসা গভর্নিং বডির সভাপতি মো.মেহেদী হাছান (রুবেল ভূঁইয়া) উপস্থিত নেতৃবৃন্দকে প্রতিষ্ঠানের চলমান উন্নয়ন এবং মাঠ সম্প্রসারণের কাজ সম্পর্কে অবগত করেন এবং মাদ্রাসা ক্যাম্পাস ঘুরিয়ে দেখান।

চাটখিল কামিল মাদ্রাসার উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন-এইচ এম ইব্রাহিম

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুপুর ১টার দিকে বাতাসে লাশের দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন দুর্গন্ধের উৎস খুঁজতে থাকে। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে লামচর গ্রামের সর্দার বাড়ি সংলগ্ন ডোবায় অর্ধগলিত একটি মরদেহ দেখতে পায় তারা।

চাটখিলে বৃদ্ধের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

বেলায়েত হোসেন আশা করেন দলীয় নেতৃবৃন্দ ও তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সহযোগিতায় সর্বসাধারনের ভালোবাসায় তিনি বিপুল ভোটে চাটখিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।

চাটখিলে সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বেলায়েত এর মতবিনিময়

নোয়াখালীর চাটখিলে কর্মরত সাংবাদিকদের সম্মানে চাটখিল উপজেলা প্রেসক্লাবের আয়োজনে চাটখিল কামিল মাদ্রাসা গভর্নিং বডির সভাপতি সাংবাদিক মেহেদী হাছান রুবেল ভুঁইয়া’র পৃষ্ঠপোষকতায় ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চাটখিলে কর্মরত সাংবাদিকদের সম্মানে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

Comments are closed.