প্রতিনিয়ত নিরীহ লোকজনকে হয়রানি করা হচ্ছেঃ ব্যারিস্টার মওদুদ

85

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, সরকারের মধ্যে একটি দুরভিসন্ধিমূলক আচরণ লক্ষ্য করছি। আমরা বার বার বলে আসছি, নির্বাচনে আমরা অংশগ্রহণ করতে না পারি সেটাই সরকার ও নির্বাচন কমিশন চায়। বিএনপির নেতাকর্মীদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এখনো গ্রেফতার অব্যাহত রেখেছে। প্রতিনিয়ত নিরীহ লোকজনকে হয়রানি করা হচ্ছে। সম্ভাব্য এজেন্টদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে গ্রেফতার ও নজরদারি চলছে। নির্বাচন কমিশন সরকারের লক্ষ্য বাস্তবায়ন করার জন্য কাজ করছে। বিএনপির ৮১ জনের মনোনয়ন বাতিল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা আইনের আশ্রয় নেব। হাইকোর্ট ডিভিশনে রিট দায়ের করে চ্যাঞ্জেল করা হবে।
ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে বলিনি নিজেদের জন্য ও ঐক্যফ্রন্টের জন্য কত আসন দেওয়া নেওয়া হবে। কাকে কত আসন দেওয়া হবে শেষ মুুহূর্ত পর্যন্ত দেন দরবার চলছে। ধানের শীষের জনপ্রিয়তার পাশাপাশি যদি প্রার্থীর জনপ্রিয়তা থাকে তাহলে আমরা তাকে অগ্রাধিকার দিব। যদি প্রার্থীর জনপ্রিয়তা থাকে আমরা প্রয়োজনে বেশি আসন দিব। এতে বেশি আসন দিতে কোন সমস্যা নাই। প্রার্থী ঐক্যফ্রন্টের হোক, জোটের হোক কিংবা বিএনপির হোক নির্ভর করবে তার জনপ্রিয়তার উপর।
তিনি বলেন, ধানের শীষের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। যদি সরকার গ্রেফতার বন্ধ করে, নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয় তাহলে সারাদেশে ধানের শীষ বিপুল ভোটে জয়লাভ করবে। কোন দল সন্ত্রাসীর আশ্রয় নিবে না। প্রতিপক্ষের প্রতি আমার নিবেদন থাকবে সম্মানজনক ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে কোন ধরণের সরকারি প্রভাব ছাড়া পুলিশ প্রশাসন নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করবে।
ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ সোমবার সকাল ১১টায় নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ মানিকপুরস্থ নিজ বাস ভবনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এসব কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সাবেক এমপি হাসনা জসিম উদ্দিন মওদুদ, উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আহছান উল্যাহ মানিক, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, বিএনপির নেতা ফিরোজ আলম, শাহজাহান, পৌর যুবদলের সভাপতি শওকত হোসেন সগীর, ছাত্রনেতা আতোয়ার হোসেন পাবেল, এরশাদ আহমদ প্রমুখ।

আরও পড়ুন

এ সময় বক্তারা আদালতের রায় ও ডাক্তারের চিকিৎসা পত্র বাংলা ভাষায় লিপিবদ্ধ করার জন্য জোরালো দাবি জানান।

চাটখিল কামিল মাদ্রাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

অল্পদিনের মধ্যেই এখানকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড গতিশীল হবে জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো অন্যায়, অবিচার, অনিয়ম ও চাঁদাবাজ আমার কাছে প্রশ্রয় পাবে না।

নিজ এলাকায় জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন এইচ এম ইব্রাহিম এমপি

মফস্বলে সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম।

মফস্বল সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ – এইচ এম ইব্রাহিম

এইচ এম ইব্রাহিম বলেন,আমার নির্বাচনী এলাকার অসুবিধাগ্রস্থ মানুষদের মাঝে অতীতের ন্যায় এবারও আমি শীতবস্ত্র বিতরণ করেছি। আমার নেতাকর্মীদের মাধ্যমে আমি প্রায় পঞ্চাশ হাজার পরিবারের কাছে এই শীতবস্ত্র পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছি।

নোয়াখালী-১ আসনে এইচ এম ইব্রাহিম এমপির শীতবস্ত্র বিতরণ

গ্রেপ্তার হওয়া মোশারফ হোসেন টিটু (২২) কবিরহাট থানার সুন্দলপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের লাতু সওদাগর বাড়ির মৃত মিয়াধনের ছেলে। সে পেশায় একজন মোবাইল মেকানিক।

কবিরহাটে ভাবির ব্যক্তিগত ভিডিও নিয়ে দেবর গ্রেপ্তার

Comments are closed.