পাসপোর্ট করতে এসে দালালসহ ২ রোহিঙ্গা আটক

79

সুনামগঞ্জে পাসপোর্ট করতে এসে দুই রোহিঙ্গা আটক হয়েছেন। এর মধ্যে এক নারী আছেন। তাঁরা টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে স্থানীয় চার ব্যক্তির সহযোগিতায় সুনামগঞ্জে আসেন।গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে জেলা পাসপোর্ট কার্যালয় থেকে দুজনকে আটক করা হয়। একই সঙ্গে তাদের সহযোগী হিসেবে আটক হয়েছেন সুনামগঞ্জে চার ব্যক্তি।

আটককৃতরা হলেন রোহিঙ্গা মো. আবদুল হালিম (২৪) ও রিয়াজুল জান্নাত (১৮)। এই দুজন টেকনাফের উখিয়ায় পৃথক দুটি ক্যাম্পে ছিলেন। ২০১৭ সালে তারা মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আসেন।

সুনামগঞ্জের আটক চার ব্যক্তি হলেন জামালগঞ্জ উপজেলার সুজাতনগর গ্রামের মো. জসিম উদ্দিন (২৪) ও আমির উদ্দিন (৩০), তেরাবগড় গ্রামের ফরহাদ আহমেদ (৩৫), রামনগর গ্রামের নুর হোসেন (২৩)।জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে গতকাল রাত সাড়ে ৯টায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়।সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বৃহস্পতিবার সকালে দুই রোহিঙ্গারা সুনামগঞ্জে আসেন। তাদের সহযোগিতা করেন সুনামগঞ্জের আটককৃত ব্যক্তিরা। এরপর তাঁরা পাসপোর্ট করতে জেলা পাসপোর্ট কার্যালয়ে গিয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দেন। সব কাজে সুনামগঞ্জের চার ব্যক্তি তাদের সহযোগিতা করেন।

বিকেলে আবার ছবি ও আঙুলের চাপ দিতে গেলে পাসপোর্ট কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের সন্দেহ হয়। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে দুই রোহিঙ্গাসহ ছয়জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান জানান, দুই রোহিঙ্গা সুনামগঞ্জের চার ব্যক্তির সহযোগিতায় বাংলাদেশি পাসপোর্ট করতে এখানে এসেছিলেন। পরে জেলা পাসপোর্ট কার্যালয়ের সহযোগিতায় চার দালালসহ তাদের আটক করা হয়েছে। কাল শুক্রবার আকটকৃতদের আদালতে হাজির করা হবে।সদর মডেল থানায় অনুষ্ঠিত এই সংবাদ সম্মেলনে সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হায়াতুন্নবী, সহকারী পুলিশ সুপার কানন কুমার দেবনাথ, সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল্লাহ, জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার ওসি কাজী মুক্তাদীর হোসেন, বিশেষ শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল লতিফ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

বিশেষ মেহমান হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন বিএম এর নোয়াখালী জেলার সভাপতি ডাঃ এম এ নোমান,চাটখিল কামিল (এম.এ) মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও উপজেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মেহেদী হাছান রুবেল ভূঁইয়া।

চাটখিলে ডিয়ার ছোয়াদ এজেন্সির হজ্জ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

মাদ্রাসা গভর্নিং বডির সভাপতি মো.মেহেদী হাছান (রুবেল ভূঁইয়া) উপস্থিত নেতৃবৃন্দকে প্রতিষ্ঠানের চলমান উন্নয়ন এবং মাঠ সম্প্রসারণের কাজ সম্পর্কে অবগত করেন এবং মাদ্রাসা ক্যাম্পাস ঘুরিয়ে দেখান।

চাটখিল কামিল মাদ্রাসার উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন-এইচ এম ইব্রাহিম

মাদ্রাসা গভর্নিং বডির সভাপতি মো.মেহেদী হাছান রুবেল ভূঁইয়া বলেন,ঐতিহ্যবাহী চাটখিল কামিল মাদ্রাসা একটি শতবর্ষী প্রতিষ্ঠান।জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২৪ এ প্রতিষ্ঠানটি উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

চাটখিল কামিল মাদ্রাসা শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুপুর ১টার দিকে বাতাসে লাশের দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন দুর্গন্ধের উৎস খুঁজতে থাকে। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে লামচর গ্রামের সর্দার বাড়ি সংলগ্ন ডোবায় অর্ধগলিত একটি মরদেহ দেখতে পায় তারা।

চাটখিলে বৃদ্ধের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

বেলায়েত হোসেন আশা করেন দলীয় নেতৃবৃন্দ ও তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সহযোগিতায় সর্বসাধারনের ভালোবাসায় তিনি বিপুল ভোটে চাটখিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।

চাটখিলে সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বেলায়েত এর মতবিনিময়

Comments are closed.