পাঠাও’র মালিকের বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ

129

 

পাঠাও’র মালিকের বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ। ছবি – সংগৃহীত

অ্যাপসভিত্তিক মোটরবাইক ও গাড়ি রাইড সার্ভিস প্রদানকারী কোম্পানি ‘পাঠাও’র বিরুদ্ধে একটি আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। ভাড়া নিয়ে অনিয়মের অভিযোগে পাঠাও লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হোসেন এম. ইলিয়াস এবং প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা সিফাত আদনানের বিরুদ্ধে এ নোটিশ পাঠানো হয়।

ঢাকার পশ্চিম শেওড়াপাড়ার বাসিন্দা মো. আফজাল হোসেনের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তানজিম আল ইসলাম বুধবার (৭ নভেম্বর) রেজিস্ট্রি ডাকযোগে এ নোটিশ পাঠান।

নোটিশে বলা হয়, পাঠাও’র বাইক সার্ভিসে যাতায়াতের জন্য আফজাল হোসেন বাংলামোটর থেকে গন্তব্যস্থল শেওড়াপাড়া নির্ধারণ করলে সেখানে ডিসকাউন্ট ছাড়াই পাঠাও’র অ্যাপস ১০৫ টাকা ভাড়া প্রদর্শন করে। অথচ চালক গন্তব্যস্থলে যাওয়ার পর ১৭৩ টাকা দাবি করেন। তখন তিনি বাধ্য হয়ে সেই অর্থ  পরিশোধ করেন । কয়েকদিন পরে তার সাথে আবারও একই ঘটনা ঘটে। সেখানে রোকেয়া স্মরণি থেকে বীর উত্তম সিআর দত্ত সড়কে ১২১ টাকা ভাড়া কনফার্ম করে আসলেও চালক পরে ১৪৯ টাকা দাবি করেন।

নোটিশে আরও বলা হয়, নিয়মিতভাবে পাঠাও লিমিটেড তাদের চালকদের দিয়ে নানা কৌশলে যাত্রীদের হেনস্থা ও তাদের কাছ থেকে বেআইনিভাবে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এই অবস্থায় নোটিশপ্রাপ্তির তিন দিনের মধ্যে যথাযথ ক্ষতিপূরণ প্রদান করতে এবং চালকদের অন্যায় দাবির বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে অনুরোধ করা হয়।

পাশাপাশি নোটিশে পাঠাও সার্ভিসের ভাড়া কীভাবে নির্ধারণ করা হচ্ছে এবং তা কোন আইন বলে- সেটিও সুস্পষ্টভাবে জানানোর অনুরোধ করা হয়েছে ।

এ প্রসঙ্গে আইনজীবী তানজিম আল ইসলাম বলেন, ‘নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যদি নোটিশের জবাব না দেওয়া হয়, তাহলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আরও পড়ুন

অল্পদিনের মধ্যেই এখানকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড গতিশীল হবে জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো অন্যায়, অবিচার, অনিয়ম ও চাঁদাবাজ আমার কাছে প্রশ্রয় পাবে না।

নিজ এলাকায় জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন এইচ এম ইব্রাহিম এমপি

মফস্বলে সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম।

মফস্বল সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ – এইচ এম ইব্রাহিম

এইচ এম ইব্রাহিম বলেন,আমার নির্বাচনী এলাকার অসুবিধাগ্রস্থ মানুষদের মাঝে অতীতের ন্যায় এবারও আমি শীতবস্ত্র বিতরণ করেছি। আমার নেতাকর্মীদের মাধ্যমে আমি প্রায় পঞ্চাশ হাজার পরিবারের কাছে এই শীতবস্ত্র পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছি।

নোয়াখালী-১ আসনে এইচ এম ইব্রাহিম এমপির শীতবস্ত্র বিতরণ

গ্রেপ্তার হওয়া মোশারফ হোসেন টিটু (২২) কবিরহাট থানার সুন্দলপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের লাতু সওদাগর বাড়ির মৃত মিয়াধনের ছেলে। সে পেশায় একজন মোবাইল মেকানিক।

কবিরহাটে ভাবির ব্যক্তিগত ভিডিও নিয়ে দেবর গ্রেপ্তার

Comments are closed.