নোয়াখালীতে করোনায় সংক্রমিত পিডিবি কর্মকর্তার মৃত্যু

মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪৫

0 ৬৯

নোয়াখালীতে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিপিডিবি) এক কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। ওই কর্মকর্তার নাম মাহবুব মোর্শেদ (৫৬)। সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঢাকার মধ্য বাড্ডার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। তিনি কয়েক দিন ধরে ওই হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।

মাহবুব মোর্শেদ পিডিবির হবিগঞ্জের সাহাজিবাজার বিদ্যুৎকেন্দ্রের জ্যেষ্ঠ ভান্ডার রক্ষক কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি সোনাইমুড়ী উপজেলায়। তাঁর স্ত্রী লায়লাতুন নাহার সোমবার সন্ধ্যায় তাঁর স্বামীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ১১ জুন নোয়াখালীর ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে তাঁর স্বামীর নমুনা দেওয়া হয়। ১৪ জুন নমুনা পরীক্ষায় ফলাফল করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। এরপর তাঁকে নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামের কোভিড-১৯ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে ২০ জুন তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসক। ওই দিনই ঢাকার মধ্য বাড্ডার এ এম জেড হাসপাতালে তাঁর স্বামীকে ভর্তি করা হয়।

লায়লাতুন নাহার জানান, ঢাকার ওই বেসরকারি হাসপাতালে শুরুতেই তাঁর স্বামীকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। এরপর অবস্থার আরও অবনতি ঘটলে তাঁকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। প্রায় এক সপ্তাহ ধরে তিনি লাইফ সাপোর্টে ছিলেন। সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় নোয়াখালীতে করোনায় সংক্রমিত হয়ে দুজনের মৃত্যু হলো। মারা যাওয়া অপর ব্যক্তি হলেন নৌ পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ওমর ফারুক। রোববার দিবাগত রাতে বেগমগঞ্জের গ্রামের বাড়ি থেকে ঢাকায় পুলিশ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

এ পর্যন্ত জেলায় করোনায় মারা গেলেন ৪৫ জন। এর মধ্যে বেগমগঞ্জে ২৩ জন, সোনাইমুড়ীতে ৩, সুবর্ণচরে ১, সদরে ৮, চাটখিলে ২, কবিরহাটে ২, সেনবাগে ৬ ও কোম্পানীগঞ্জে ১ জন রয়েছেন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।