দুবাইয়ের মিরাকল গার্ডেনের আদলে সেজেছে সীতাকুণ্ডের ডিসি পার্ক

112

‘ফুলের মতো আপনি ফুটাও গান’-এই প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে চট্টগ্রাম ডিসি পার্কে শুরু হয়েছে মাসব্যাপী ফুল উৎসব বা ফুল মেলা। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার সময় সীতাকুণ্ডের ফৌজদার হাট উপকূলীয় এলাকায় ডিসি পার্কে এই ফুল উৎসবের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মন্ত্রিপরিষদের সচিব মাহবুব হোসেন। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের সভাপতিত্বে ফিতা কেটে বেলুন উড়িয়ে ফুল উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি এই ফুল উৎসব শেষ হলেও, ফুল মেলা থাকবে বছরজুড়ে।

ফুল উৎসবের পাশাপাশি থাকছে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক আয়োজন। থাকছে ঘুড়ি উড়ানো, ভায়োলিন ও চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী সাম্পান উৎসব। তবে ফুল উৎসবের আগে থেকেই হাজারো দর্শক এই বাগান দেখতে আসছেন প্রতিদিন। মাসব্যাপী এ আয়োজনকে আরো আকর্ষণীয় করতে ফুলের প্রদর্শনীর পাশাপাশি কয়েকটি সেলফি জোন ও পর্যটকদের জন্য থাকছে সাম্পান বাইচের আয়োজন। আবহমান বাংলার ঐতিহ্য রক্ষার্থে থাকবে বিভিন্ন সময়ের ১৫টি নৌকা প্রদর্শন। ডিসি পার্ক দর্শকপ্রিয় করতে এই ফুল বাগান সাজানো হয়েছে দুবাইয়ের মিরাকল গার্ডেনের আদলে, হয়ে উঠছে একটি পর্যটক স্পট।

সাগরপাড়ের ১৯৪ একর সরকারি জমির গড়ে তোলা হয়েছে ডিসি পার্ক। একসময় এলাকাটি ছিল পরিত্যক্ত। বিশাল এলাকাটি ১০ বছরের বেশি সময় ধরে একটি চক্র অবৈধভাবে দখল করে রেখেছিল। সেখানে চলত মাদক কারবার ও অবৈধ কর্মকাণ্ড। সাধারণ মানুষ এলাকাটি এড়িয়ে চলত। আর চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক আবুল বাশার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের উদ্যোগে সেখানেই গড়ে তোলা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন পার্ক। তিনি দায়িত্ব নেওয়ার মাত্র এক মাসের মধ্যে এসব জমি অবৈধ দখলমুক্ত করেন।

এলাকাটি এখন ফুলের রাজ্য। ডিসি পার্কে এখন দেশি-বিদেশি ১২৭ প্রজাতির নানা রঙের ফুলের সমারোহ। এর সুগন্ধে মাতোয়ারা এলাকার বাতাস। গত বছর ১০ জানুয়ারি চট্টগ্রাম ডিসি পার্কে প্রথমবার ফুল উৎসব হয়। এবারের উৎসবের পরিধি আরো বাড়ানো হয়েছে।

গতকাল ফুল উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. তোফায়েল ইসলাম। উদ্বোধনকালে আরো উপস্থিত ছিলেন সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে এম রফিকুল ইসলাম, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আশরাফুল আলম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আলাউদ্দিন, সীতাকুণ্ড মডেল থানার ওসি কামাল উদ্দিনসহ অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তারা।

এ সময় ফুল উৎসবে আগত অতিথিরা বলেন, মানুষ ফুল দিয়ে অতিথি বরণ করেন, ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান, ভালোবাসার মানুষকে ফুল উপহার দেন, ফুল দিয়ে সৌন্দর্য বর্ধন করেন। কারো সাফল্যে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। মানুষের জীবনে ফুলের ব্যবহার অপরিসীম।

তারা আরো বলেন, ফুল কখনো নিজের জন্য ফোটে না, ফুল অন্যের জন্য ফোটে। তাই চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আজকে ফুলকে আরো কাছে টানতে, ফুলের মধ্যে মানুষের নিজেকে বিলিয়ে দিতে, ফুলকে গভীর থেকে চিনে নিতে মাসব্যাপী এই ফুল উৎসবের আয়োজন করেছেন।

ফুল প্রকৃতির সৌন্দর্য। এ সৌন্দর্য দিয়ে অপরকে সুন্দর করে তোলে। আমরা যখন ছোট ছিলাম তখন এত ফুল দেখিনি। আজকে আমাদের সন্তানরা হরেক রকমের ফুল দেখতে পাচ্ছে। তরুণরা ফুলের সঙ্গে কিছু সময় দিলে ফুলের নির্মল সৌন্দর্যকে নিজের জীবনেও নির্মলতা আনতে পারবে। আমাদের দেশে ফুল নিয়ে কোনো অনুষ্ঠান বা উৎসব না হলেও বিদেশে কিন্তু অনেক আগে থেকে ফুল উৎসব বা ফুল মেলা হয়ে আসছে।

আরও পড়ুন

বিশেষ মেহমান হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন বিএম এর নোয়াখালী জেলার সভাপতি ডাঃ এম এ নোমান,চাটখিল কামিল (এম.এ) মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও উপজেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মেহেদী হাছান রুবেল ভূঁইয়া।

চাটখিলে ডিয়ার ছোয়াদ এজেন্সির হজ্জ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

মাদ্রাসা গভর্নিং বডির সভাপতি মো.মেহেদী হাছান (রুবেল ভূঁইয়া) উপস্থিত নেতৃবৃন্দকে প্রতিষ্ঠানের চলমান উন্নয়ন এবং মাঠ সম্প্রসারণের কাজ সম্পর্কে অবগত করেন এবং মাদ্রাসা ক্যাম্পাস ঘুরিয়ে দেখান।

চাটখিল কামিল মাদ্রাসার উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন-এইচ এম ইব্রাহিম

মাদ্রাসা গভর্নিং বডির সভাপতি মো.মেহেদী হাছান রুবেল ভূঁইয়া বলেন,ঐতিহ্যবাহী চাটখিল কামিল মাদ্রাসা একটি শতবর্ষী প্রতিষ্ঠান।জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২৪ এ প্রতিষ্ঠানটি উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

চাটখিল কামিল মাদ্রাসা শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুপুর ১টার দিকে বাতাসে লাশের দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন দুর্গন্ধের উৎস খুঁজতে থাকে। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে লামচর গ্রামের সর্দার বাড়ি সংলগ্ন ডোবায় অর্ধগলিত একটি মরদেহ দেখতে পায় তারা।

চাটখিলে বৃদ্ধের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

বেলায়েত হোসেন আশা করেন দলীয় নেতৃবৃন্দ ও তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সহযোগিতায় সর্বসাধারনের ভালোবাসায় তিনি বিপুল ভোটে চাটখিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।

চাটখিলে সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বেলায়েত এর মতবিনিময়

Comments are closed.