‘তরুণদের মধ্যে দেশপ্রেম নেই’

0 0

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা সংগ্রামে তরুণরা অগ্রগামী ভূমিকা পালন করেছিল। কিন্তু এখনকার তরুণদের মধ্যে দেশপ্রেম নেই আছে শুধু মোবাইলে আসক্তি।

তিনি বলেন, একাত্তরে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার যুদ্ধে ছাত্ররা সাহসী ভূমিকা রেখেছিল কিন্তু বর্তমানে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় কোনো তরুণকে এগিয়ে আসতে দেখি না। তরুণদের মধ্যে দেশপ্রেম নেই, তারা শুধু মোবাইলে আসক্ত।

 

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তাফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মিলনায়তনে ভয়েস ফর ডেমোক্রেসি অ্যান্ড ভোটার রাইটস আয়োজিত ‘দ্বি কক্ষ বিশিষ্ট পার্লামেন্ট প্রেক্ষিত বাংলাদেশ’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্র নেই এটি যেমন সত্য। একইভাবে সত্য যে দেশের অনেক রাজনৈতিক দলেই গণতন্ত্রের চর্চা নেই। আমরা দেশে গণতন্ত্র চাই, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই, একটি নির্ভেজাল সংসদ চাই। যখন এগুলো প্রতিষ্ঠা হবে তখন আমরা দ্বি-কক্ষ বিশিষ্ট সংসদ নিয়ে আলোচনা করব। বাংলাদেশ এমন অবস্থায় আছে যে মানুষ এখন তাদের অধিকার চায়, ভোটাধিকার চায়, সংসদ কত কক্ষ সেটা পরে বিবেচনা করবে।

তিনি বলেন, যে নির্বাচন হচ্ছে তা প্রহসনের নির্বাচন। এই সরকার ও নির্বাচন কমিশনের পক্ষে যে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয় তার জ্বলন্ত প্রমাণ কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন। এ দেশ একটি পুলিশি রাষ্ট্র যেখানে জনগণের কোন অধিকার নেই। জনগণসহ আমরা কারাগারে বসবাস করছি। সুইস ব্যাংকে এত টাকা পাচার করা হয়েছে কিন্তু সরকার জানতেও চায় না কারা টাকা রেখেছে। কারণ জানলে সরকার দলের রাঘববোয়ালদের নাম চলে আসবে।

গোলটেবিল আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. আনোয়ার উল্লাহ চৌধুরী। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. আবদুল লতিফ মাসুম।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।