তথ্য প্রদানে নিষেধাজ্ঞা,গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় সরাসরি হস্তক্ষেপ : ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন

গণমাধ্যমে তথ্য প্রদানে নিষেধাজ্ঞা জারি সংবিধানের মৌলিক অধিকার পরিপন্থী।

0 63

করোনাভাইরাস মহামারি পরিস্থিতিতে সরকারি হাসপাতালগুলার সংশ্লিষ্টদের স্বাস্থ্যসেবাবিষয়ক কর্মকাণ্ড অথবা রোগ ও রোগীদের সম্পর্কে তথ্য গণমাধ্যমে দেওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছেন ঢাকার সিভিল সার্জন ডা. আবু হোসেন মো. মঈনুল আহসান। এমন সিদ্ধান্তে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। একইসঙ্গে অবিলম্বে এই নির্দেশনা বাতিলের দাবিও জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ঢাকা সিভিল সার্জনের এই ধরনের প্রজ্ঞাপন স্বাধীন গণমাধ্যমের গলা টিপে ধরে করোনা পরিস্থিতির তথ্য গোপনের একটি অপচেষ্টা। এটা সংবিধানের মৌলিক অধিকার পরিপন্থী।

গতকাল এক বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, গণমাধ্যমকর্মীরা সরকারের অব্যবস্থাপনা, দুর্নীতি, চিকিৎসকসহ জনবল সংকট নিয়ে প্রতিবেদন করছেন। গণমাধ্যমকর্মীদের সঠিক চিত্র তুলে ধরার কারণে স্বাস্থ্য বিভাগ যথাযথ দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট হচ্ছে। জনসাধারণও করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় নিজেদের সতর্ক করছে। এ অবস্থায় ঢাকা জেলার সিভিল সার্জন যে প্রজ্ঞাপন জারি করেছেন তার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। একই সঙ্গে জারিকৃত প্রজ্ঞাপন বাতিলের দাবিও জানাচ্ছি।

বৃহস্পতিবার (০৮ জুলাই) ঢাকার সিভিল সার্জন ডা. আবু হোসেন মো. মঈনুল আহসান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়েছে, সরকারি হাসপাতালের সংশ্লিষ্টরা রোগীদের তথ্য গণমাধ্যমে দিতে পারবেন না। দেশে করোনাভাইরাসে শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যার ব্যাপক ঊর্ধ্বগতির মধ্যে এমন নিষেধাজ্ঞা দেন ঢাকার সিভিল সার্জন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।