জায়লস্করে বাল্যবিবাহ বন্ধ করে দিলেন এসিল্যান্ড

0 ১৩

দাগনভূঞা উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) হস্তক্ষেপ রবিবার একটি বাল্য বিবাহ বন্ধ করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, জায়লস্কর ইউনিয়নের উত্তর আলামপুর গ্রামের এক ব্যক্তি তার স্কুল পড়–য়া ১৫ বছর বয়সী মেয়ের সাথে একই উপজেলার রাজাপুর গ্রামের এক যুবকের সাথে বিয়ের কথাবার্তা চুড়ান্ত হয়। রোববার বিয়ের দিন দুপুরে কনের বাড়ীতে বর পক্ষের জন্য রান্নাসহ সব আয়োজন শেষ। বাল্য বিবাহের খবর পেয়ে বেলা ১২টার দিকে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোজাম্মেল হক চৌধুরী ও স্থানীয় জায়লস্কর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মিলন কনের বাড়ীতে হাজির হয়। কর্মকর্তারা কনের বয়স সংক্রান্ত জন্মসনদ ও অন্যান্য কাগজপত্র দেখে কনের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়ার জন্য বাবা-মাকে নির্দেশ দেন। কনের বাব-মাও ভূল বুঝতে পেরে এ জন্য দু:খ প্রকাশ, ক্ষমা প্রার্থনা ও ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়ার অঙ্গীকার করেন। এসময় বাল্য বিবাহ বন্ধের বিষয়টি বর পক্ষকে মুঠোফোনে জানিয়ে দেওয়া হয়।
জায়লস্কর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ তার ইউনিয়নের উত্তম আলামপুর গ্রামে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোজাম্মেল হক চৌধুরী কর্তৃক একটি বাল্য বিবাহ বন্ধ করে দেওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেন।
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, বাল্য বিবাহ একটি সামাজিক ব্যাধি। আসুন আমরা সকলে মিলে বাল্য বিবাহকে না বলি, জনসচেতনতা গড়ে তুলি।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।