চাটখিল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্যসেবা বিঘ্নিত

213

৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে ডাক্তার সহ জনবলের অভাবে দীর্ঘদিন ধরে মারাত্বকভাবে স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম বিঘ্নিত হচ্ছে। ফলে উপজেলাবাসী কাঙ্খিত সেবা পাচ্ছেননা। বিশেষ করে গরিব, নিরীহ রোগীদের পোহাতে হচ্ছে মারাত্বক দুর্ভোগ। এরা অর্থের অভাবে বেসরকারী হাসপাতালেও চিকিৎসা নিতে না পেরে ধুকে ধুকে মরছে।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, ৩১ শয্যা বিশিষ্ট চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ২০০৭ সালে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট কমপ্লেক্সে উন্নীত হয়। এতে করে রোগীর সংখ্যা দিনের পর দিন বৃদ্ধি পেতে থাকে। কিন্তু জনবল ও ঔষধ সরবরাহ অনেকটা আগেরমত বিদ্যমান রয়েছে। এখানে বর্তমানে ৩০ জন ডাক্তারের স্থলে কর্মরত রয়েছে মাত্র ১১ জন, দ্বিতীয় শ্রেণীর কর্মকর্তা ২৫ জনের স্থলে কর্মরত রয়েছে ১৬ জন, তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারী (অফিস ষ্টাফ) ৯ জনের স্থলে মাত্র ৩ জন। ৩য় শ্রেণীর কর্মচারী (মাঠ কর্মচারী) ৫৭ জনের স্থলে ৩৪ জন, সিএইচসিপি ৩০ জনের স্থলে ২৮ জন, মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ল্যাব) ৩ জনের স্থলে ২ জন, ফার্মাসিস্ট ৩ জন থাকার কথা থাকলেও একজনও নেই এবং ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারী ২৩ জনের স্থলে ১৮ জন কর্মরত আছেন। এছাড়া কমিউনিটি ক্লিনিক গুলোর অনেকটাতেই রয়েছে অবকাঠামোগত সমস্যা।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ শিশির কুমার রায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, জনবলের অভাবে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি পরিচালনা করতে মারাত্বক সমস্যা হচ্ছে। নোয়াখালী জেলা সিভিল সার্জন ডাক্তার মজিবুল হক জানান, এ সমস্যা সম্পর্কে তিনি বারবার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছেন।

চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর জনবল সমস্যা নিরসন এবং ঔষধ সরবরাহ বৃদ্ধির জন্য গত ৯ ফেব্রুয়ারী স্বাস্থ্য কমিটির সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন

Comments are closed.