চাটখিলে চোরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা!

106

চাটখিল উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের পরানপুর গ্রামে চোরের পিটুনিতে আবদুল মতিন (৭০) নামের এক বৃদ্ধ’র মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।
নিহত আবদুল মতিনের ভাতিজা লোকমান হোসেন জানান,সোমবার দিবাগত রাত আনুমানিক ২টার সময়ে তার চাচি মমতাজ বেগম (আবদুল মতিনের স্ত্রী) প্রকৃতীর ডাকে সাড়া দিতে বের হলে দেখেন তাদের পাশের বাড়ি আমিন উদ্দিন বেপারী বাড়ির আবুল বাসার এর বড় ছেলে এমরান হোসেন (৩০) চুরির উদ্যেশে তাদের বাথরুমের মটর খুলছে।তা দেখে তিনি চিৎকার দিলে তখন তার চাচা আবদুল মতিন ঘর থেকে বের হয়ে আসলে এমরান দৌড়ে পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় বিচার চেয়ে আবদুল মতিন স্থানীয় ইউপি মেম্বারকে বিষয়টি অবহিত করেন।এতে এমরান ক্ষিপ্ত হয়ে মঙ্গলবার সকালে তার চাচাতো ভাই রুবেলকে নিয়ে বৃদ্ধ আবদুল মতিনের ওপর অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে তাকে মারাতœক আহত করে।
এতে আবদুল মতিন ঘটনা স্থলে অজ্ঞান হয়ে পড়লে তাকে প্রথমে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র নেওয়া হয়,আশংকাজনক অবস্থা দেখে তাকে নোয়াখালী জেলা শহরে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে।অবশেষে মঙ্গলবার রাত ৮ টার দিকে আবদুর মতিন নোয়াখালী সদরের প্রাইম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরন করেন। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতী চলছে বলে নিহতের পরিবার জানিয়েছে।
চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুর আনোয়ার ঘটনাটি লোকমুখে জেনেছেন বলে জানান এবং তিনি নিহতদের এলাকায় যাওয়ার পথে(রাত ১০টা ১০ মিনিেিট) রয়েছেন বলেও জানান।

আরও পড়ুন

অল্পদিনের মধ্যেই এখানকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড গতিশীল হবে জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো অন্যায়, অবিচার, অনিয়ম ও চাঁদাবাজ আমার কাছে প্রশ্রয় পাবে না।

নিজ এলাকায় জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন এইচ এম ইব্রাহিম এমপি

মফস্বলে সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম।

মফস্বল সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ – এইচ এম ইব্রাহিম

এইচ এম ইব্রাহিম বলেন,আমার নির্বাচনী এলাকার অসুবিধাগ্রস্থ মানুষদের মাঝে অতীতের ন্যায় এবারও আমি শীতবস্ত্র বিতরণ করেছি। আমার নেতাকর্মীদের মাধ্যমে আমি প্রায় পঞ্চাশ হাজার পরিবারের কাছে এই শীতবস্ত্র পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছি।

নোয়াখালী-১ আসনে এইচ এম ইব্রাহিম এমপির শীতবস্ত্র বিতরণ

গ্রেপ্তার হওয়া মোশারফ হোসেন টিটু (২২) কবিরহাট থানার সুন্দলপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের লাতু সওদাগর বাড়ির মৃত মিয়াধনের ছেলে। সে পেশায় একজন মোবাইল মেকানিক।

কবিরহাটে ভাবির ব্যক্তিগত ভিডিও নিয়ে দেবর গ্রেপ্তার

Comments are closed.