ঈদে মুরাদের ‘ভীষণ রকম ভালবাসি’

172

নোয়াখালীর চাটখিলের সন্তান মুরাদ আলী খান। গানপাগল এই তরুণ ছোটবেলা থেকেই গানকে ধ্যান-জ্ঞান করে আসছেন। তাইতো গানের পথেই তার অভিযাত্রা, আগামীর পথচলা। গানের সাথে প্রাণ মিশিয়ে গান নিয়েই তার পড়াশোনা। বর্তমানে ঢাকা সরকারি সঙ্গীত কলেজে মিউজিক অফ মাস্টার্স-এ অধ্যায়ন করছেন মুরাদ।
পড়াশোনার পাশাপাশি নিয়মিত গান লেখা ও সুর করার পাশাপাশি তার প্রাণবন্ত গায়কীতে রীতিমতো মুগ্ধ সঙ্গীতপ্রেমীরা। এরই মধ্যে সঙ্গীতের বেশ পরিচিত মুখ হয়ে উঠেছে সম্ভাবনাময় এ সঙ্গীতশিল্পী।
এবারের ঈদকে ঘিরে এরই মধ্যে প্রকাশ পেয়েছে তরুণ প্রজন্মের এ শিল্পীর নতুন গান ‘ভীষণ রকম ভালবাসি’। দেশের প্রথমসারির অডিও ভিডিও কোম্পানি জি সিরিজ-এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান অগ্নিবীণার ব্যানারে প্রকাশ পেয়েছে নতুন এই গান। যার কথা ও সুর করেছেন শিল্পী নিজেই।
গানটি প্রসঙ্গে মুরাদ আলী খান বলেন, ‘শ্রোতাদের ভালোলাগার বিষয়টি মাথায় রেখেই গানটির কথার সাথে মিল রেখে সুর করেছি। বরাবরের মতই বন্ধু রিয়েল আশিক-এর মিউজিক আমাকে মুগ্ধ করেছে। আশা করি, গানটি সবার ভালো লাগবে। আসলে একটি গান তো একজন করা সম্ভব নয়, এর সাথে জড়িত থাকে অনেকগুলো মানুষের পরিশ্রম। সবার প্রতি অসীম কৃতজ্ঞতা। বরাবরের মতো সবার আন্তরিক ভালোবাসা ও অনুপ্রেরণায় সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চাই।’
এর আগে মুরাদের গাওয়া ৩টি গান প্রকাশ পায়। গানগুলো হচ্ছে- ‘পরী’, ‘বেলকনি’ এবং ‘দিল যায় জ্বলি’। শিগগিরই নতুন একক অ্যালবাম নিয়ে শ্রোতাদের সামনে হাজির হবেন বলে জানিয়েছেন মুরাদ।

আরও পড়ুন

অল্পদিনের মধ্যেই এখানকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড গতিশীল হবে জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো অন্যায়, অবিচার, অনিয়ম ও চাঁদাবাজ আমার কাছে প্রশ্রয় পাবে না।

নিজ এলাকায় জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন এইচ এম ইব্রাহিম এমপি

মফস্বলে সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম।

মফস্বল সাংবাদিকতা করা একটা চ্যালেঞ্জ – এইচ এম ইব্রাহিম

এইচ এম ইব্রাহিম বলেন,আমার নির্বাচনী এলাকার অসুবিধাগ্রস্থ মানুষদের মাঝে অতীতের ন্যায় এবারও আমি শীতবস্ত্র বিতরণ করেছি। আমার নেতাকর্মীদের মাধ্যমে আমি প্রায় পঞ্চাশ হাজার পরিবারের কাছে এই শীতবস্ত্র পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছি।

নোয়াখালী-১ আসনে এইচ এম ইব্রাহিম এমপির শীতবস্ত্র বিতরণ

গ্রেপ্তার হওয়া মোশারফ হোসেন টিটু (২২) কবিরহাট থানার সুন্দলপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের লাতু সওদাগর বাড়ির মৃত মিয়াধনের ছেলে। সে পেশায় একজন মোবাইল মেকানিক।

কবিরহাটে ভাবির ব্যক্তিগত ভিডিও নিয়ে দেবর গ্রেপ্তার

Comments are closed.